মঙ্গলবার , ২৪ নভেম্বর ২০২০
সর্বশেষ সংবাদ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের ফল পেতে কতো অপেক্ষা করতে হবে? ৭ নভেম্বর ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:  এবারের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের চূড়ান্ত ফল নিয়ে বেশ জটিলতা তৈরি হয়েছে। কতদিন লাগতে পারে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের চূড়ান্ত ফল পেতে? এমন প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে সবদিকে, ফলে সারা পৃথিবীর মানুষের চোখ এখনও যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের ফলাফলের দিকে।
ডেমোক্রেট প্রার্থী জো বাইডেন জয়ের দ্বারপ্রান্তে থাকলেও জয় নিশ্চিত কী না, তা এখনই বলা যাচ্ছে না।
নির্বাচনের চূড়ান্ত ফল আসতে কতটা দেরি হতে পারে, দেরির কারণ কী, তা নিয়ে বিশ্লেষণ তুলে ধরেছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান। সংবাদমাধ্যমটি বলছে, চূড়ান্ত ফল পেতে বেশ সময় লেগে যেতে পারে। নির্বাচনের ফলাফল আসতে কয়েক দিন, কয়েক সপ্তাহ এমনকি কয়েক মাসও লেগে যেতে পারে।


এটা নির্ভর করছে পরিস্থিতির ওপর।
প্রতিবেদন অনুযায়ী, গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গরাজ্যগুলোতে এখনো ভোট গণনা চলছে।


পেনসিলভেনিয়া, জর্জিয়া, অ্যারিজোনা, নেভাদা ও নর্থ ক্যারোলাইনায় ভোট গণনা এখনো শেষ হয়নি। বাকি রয়েছে আলাস্কাতেও। নির্বাচনে ভোট গণনার যেন শেষ নেই।
পি ও ফক্স নিউজ অ্যারিজোনা অঙ্গরাজ্যে জো বাইডেন জয়ী বলে ধরে নিয়েছে। তবে ট্রাম্পের প্রচার শিবির বলছে, এই হিসাব করার সময় এখনো আসেনি। জর্জিয়ায় চলছে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই। এখানকার সম্ভাব্য ভোটের ৯৯ শতাংশ গণনা হয়ে গেছে।

স্থানীয় সময় শুক্রবার (০৬ নভেম্বর) সকাল পর্যন্ত জো বাইডেন ট্রাম্পের চেয়ে চার হাজারের কিছু বেশি ভোটের ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন।

নেভাদা অঙ্গরাজ্যে এগিয়ে রয়েছেন বাইডেন। অঙ্গরাজ্যের আইন অনুযায়ী ১০ নভেম্বর বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত যত ভোট আসবে সব গণনা করা হবে। এর অর্থ হলো সপ্তাহ জুড়ে ভোট গণনা চলবে।

নর্থ ক্যারোলাইনায় ট্রাম্প বেশ জনপ্রিয়। ১২ নভেম্বর পর্যন্ত এই অঙ্গরাজ্যে ডাকযোগে ভোট গণনা চলবে। অঙ্গরাজ্যটির কর্মকর্তারা বলছেন, সেখানে নির্বাচনের পুরো ফলাফল আসতে আগামী সপ্তাহ হয়ে যেতে পারে।

বিবিসির খবর অনুযায়ী, পেনসিলভেনিয়া অঙ্গরাজ্যে স্থানীয় সময় শুক্রবার সকালে বাইডেন প্রায় ২২ হাজার ভোটে ট্রাম্পকে পেছনে ফেলেছেন।

পেনসিলভেনিয়ার কর্মকর্তারা বলছেন, তারা আশা করছেন শুক্রবার রাতের মধ্যেই বেশির ভাগ ভোট গণনা শেষ হয়ে যাবে।

এদিকে নির্বাচনে ‘প্রভিশনাল ভোটের’ সংখ্যা বেড়ে গেছে। এ ক্ষেত্রে ডাকযোগে ভোট দিতে বলার পরে যারা সিদ্ধান্ত বদলে কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেন, তাদের ক্ষেত্রে বিশেষ যাচাই–বাছাইয়ের প্রয়োজন হয়।

নির্বাচনে ভোট চুরির অভিযোগ তুলেছেন ট্রাম্প। মামলাও করেছেন। জর্জিয়ার মামলায় ট্রাম্প শিবিরের অভিযোগ ছিল, দেরিতে আসা ৫৩টি ব্যালট আগে আসা ব্যালটের সঙ্গে মেশানো হয়েছিল। মিশিগানে ভোট গণনা বন্ধের আশায় ট্রাম্পের প্রচার শিবির মামলাটি করেছিল। যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান ও জর্জিয়ায় ট্রাম্প শিবিরের করা মামলা খারিজ করে দিয়েছেন স্থানীয় আদালতের বিচারকেরা। মিশিগান অঙ্গরাজ্যের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার অঙ্গরাজ্যটির নির্বাচন ও এর ভোট গণনাপদ্ধতি নিয়ে তদন্তের ঘোষণা দিয়েছেন।

এসব নানা কারণে এবারের নির্বাচনের চূড়ান্ত ফল পেতে বেশ সময় লেগে যেতে পারে, এমনটাই বলছে গার্ডিয়ান।

About admin

Check Also

বাইডেনের নিরাপত্তা জোরদার।

 আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ডনাল্ড ট্রাম্পের থেকে ব্যবধান বেড়ে গেছে। বিজয়ী হতে প্রয়োজনীয় ইলেকটোরাল কলেজ ভোটের কাছাকাছিও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Skip to toolbar